পদ্মায় বিরল প্রজাতির ঘড়িয়াল কুমির!

122

আসজাদ হোসেন আজু ঃ রাজবাড়ীর পদ্মা নদীতে ধরা পড়েছে বিরল প্রজাতির মিঠাপানির ঘড়িয়াল কুমির। প্রায় বিপন্ন জাতির এই প্রাণিটি বন বিভাগ উদ্ধার করে বুধবার বিকেলে দৌলতদিয়া ফেরি ঘাটে নিয়ে এসে গাজীপুর বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান সাফারি পার্কে সংরক্ষণের জন্য ঢাকা বন্য প্রানী ইউনিটের নিকট হস্তান্তর করেন।
জানাযায়, রাজবাড়ী জেলার পাংশা হাবাসপুর এলাকায় পদ্মা নদীতে সৌখিন মাছ শিকারি মো. বাদশা মিয়া গত বুধবার (২০ অক্টোবর) নেট দুয়াড়িতে ৪ ফিট ৮ ইঞ্চি লম্বা ঘড়িয়াল কুমিরটি ধরা পড়ে। গোত্রভুক্ত ঘড়িয়াল শ্রেনী এটি মেছো কুমির। এই প্রাণিটি বিভিন্ন স্থানে ঘট কুমির নামেও পরিচিত। প্রধান খাদ্য মাছ বলেই অনেকেই মেছো কুমির বলে। বাংলাদেশে পদ্মা, যমুনা ও ব্রক্ষপুত্র এবং এগুলোর শাখা প্রশাখায় এক সময় প্রচুর দেখা যেত এ ধরনের কুমির। কিন্তু আবাসস্থল ধ্বংস হয়ে যাওয়ায় বর্তমানে বাংলাদেশে প্রজননক্ষম কোন ঘড়িয়াল প্রকৃতিতে নেই বলেই বিশেষজ্ঞদের ধারনা। ঘড়িয়াল মহাবিপন্ন প্রানি যা বন্য প্রানি (সংরক্ষণ ও নিরাপত্তা) আইন ২০১২ দ্বারা সংরক্ষিত।
সৌখিন মাছ শিকারী মো. বাদশা সরদার বলেন , বাড়ীর পাশেই পদ্মা নদী শখ করে নেট দিয়ে তিন টি দুয়াড়ি তৈরী করেছি। প্রতিদিনের মতো মঙ্গলবার গোসলের সময় প্রথম নেট দুয়াড়ি টি উঠাতেই বড় মাছ মনে করে আনন্দে চিৎকার দেই। পরে পানি থেকে উপরে এনে দুয়াড়ি খুলে দেখি কুমির। কুমির টি দেখার জন্য প্রচুর লোকজন ভিড় করে। স্থানীয় চেয়ারম্যানের সহযোগিতায় কুমির টি উপজেলা প্রশাসনের নিকট দিয়ে দেই।
জেলা বন কর্মকর্তা মো. সিরাজুল ইসলাম বলেন, ঘড়িয়াল টি উদ্ধার করে সংরক্ষনের জন্য ঢাকা বন্য প্রানী ইউনিটের কর্মকর্তা দৌলতদিয়া ফেরি ঘাট আসবেন। সংরক্ষণের জন্য তাদের নিকট হস্তান্তর করা হবে।
দৌলতদিয়া ফেরি ঘাটে ঘড়িয়াল টি নিতে আসা ঢাকা বন্য প্রানি ইউনিটের পরির্দশক মো. আব্দুল্লাহ আস সাদিক বলেন, মহাবিপন্ন ঘড়িয়াল টি গাজিপুর বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান সাফারি পার্কে সংরক্ষন করা হবে। সাফারি পার্কে আরো তিন টি ঘড়িয়াল রয়েছে। এটির স্বাস্থ্য পরীক্ষা করে ঐ তিন টি সাথে রাখা হবে।

Advertisement

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here