• বৃহস্পতিবার, ০৮ ডিসেম্বর ২০২২, ০৯:০২ পূর্বাহ্ন

বহরপুর ইউনিয়ন ভূমি সহকারী কর্মকর্তা সোবাহান সেখের বিরুদ্ধে প্রতিবেশীদের হয়রানীর অভিযোগ!

প্রতিবেদকঃ / ১৮৮ পোস্ট সময়
সর্বশেষ আপডেট শনিবার, ২৪ অক্টোবর, ২০২০

স্টাফ রিপোর্টার ঃ রাজবাড়ী জেলার বালিয়াকান্দি উপজেলাধীন বহরপুর ইউনিয়ন ভূমি সহকারী কর্মকর্তা (তহ্শীলদার) সোবাহান সেখের বিরুদ্ধে প্রতিবেশীদের হয়রানীর অভিযোগ পাওয়া গেছে। এবিষয়ে প্রতিকার চেয়ে ভূক্তভোগী প্রতিবেশী জেলা প্রশাসক সহ বিভিন্ন দফতরে লিখিতভাবে আবেদন জানিয়েছে।
অভিযোগে প্রকাশ, ওই তহশীলদারের বাড়ী রাজবাড়ী সদর উপজেলাধীন রামকান্তপুর ইউনিয়নের কাজীবাধা (বেথুলিয়া) গ্রামে। প্রতিবেশী এক অসহায় বৃদ্ধকে তার বন্দোবস্তপ্রাপ্ত সরকারী জমি থেকে উচ্ছেদের জন্য নানাভাবে পাঁয়তারা করছে।
ভূক্তভোগী আব্দুল খালেক মন্ডলের অভিযোগ, জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অফিসের পিয়ন হিসেবে চাকুরী করতেন। ২০১৫ সালে চাকুরী থেকে অবসরকালীন যতটুকু সরকারী সুবিধা পেয়েছি তার প্রায় পুরো অর্থই নিজের হৃদরোগজনিত গুরুতর অসুস্থতার কারণে ব্যয় করার ফলে এখন নিঃস্ব । আয়ের কোন উৎস না থাকায় বর্তমানে টুকিটাকি কৃষিকাজ করে তার সংসার চলে।
তার দাবী ১৯৮৩ সালে বেথুলিয়া মৌজার আরএস-৬৭৯১ ও ৬৭৯২ নং দাগের ১৩ শতাংশ জমি মোনছের আলী গং এর কাছ থেকে আমার স্ত্রী জবেদা খাতুনের নামে কবলা মূলে খরিদ করি। পরবর্তীতে ক্রয়কৃত জমি সরকারী ১ নং খাস খতিয়ানভূক্ত হিসেবে বিএস রেকর্ডে অন্তর্ভূক্ত হয়। তাদের চরম দুরাবস্থার বিষয় বিবেচনা করে সদাশয় আঃ খালেক মন্ডল ও তার স্ত্রী জবেদা খাতুনের অনুকূলে উঈ-ঢ১১-২২০/১৫-১৬ / অঈ-ঢ১১-৯০/১৫-১৬ নং বন্দোবস্ত কেস মূলে ৩১/১০/২০১৬ ইং তারিখে ১৩ শতাংশ জমি বরাদ্দ করেন। উক্ত জমি বরাদ্দপ্রাপ্ত, মালিকানা ও দখলপ্রাপ্ত হওয়ার পর আঃ খালেক মন্ডল ওই জমিতে কোনরকমে একটি ছাপড়া ঘর নির্মাণ করেন।
আব্দুল খালেক মন্ডলের অভিযোগ, প্রতিবেশী তহশীলদার আব্দুস সোবহান সেখ তাহার অর্থবিত্ত ও লোকবলের প্রভাবে সম্প্রতি রাতের অন্ধকারে ঘরটি ভেঙ্গে অন্যত্র ফেলে দেয়। তাহাদের ভয়ে ও বাঁধার কারণে নতুন করে ওই জমিতে অস্থায়ীভাবেও কোন ঘর উত্তোলন করা সম্ভব হচ্ছেনা।
তত্যানুসন্ধানে জানা গেছে, তহশীলদার আব্দুস সোবাহান সেখ সম্পূর্ণ অসৎ উদ্দেশ্য চরিতার্থ করার জন্য তাহার শ^াশুরী তারা বানু, জং-মৃত কাশেম সেখ, সাং-কাজীবাধা (বেথুলিয়া), রাজবাড়ীকে দিয়ে আব্দুল খালেক মন্ডল ও তার স্ত্রী জাবেদা বেগমের নামে বন্দোবস্তকৃত উক্ত জমি নিজের মালিকানা ও দখলীয় জমি দাবী করিয়া গত ১০/০৮/২০২০ ইং তারিখে জেলা প্রশাসকের নিকট মিথ্যা আবেদনপত্র দাখিল করেছেন। ওই আবেদনের সূত্র ধরে আবেদনকারী তারা বানুর জামাতা বহরপুর ইউনিয়নের তহ্শীলদার আব্দুস সোবাহান ও তার ভাড়াটিয়া সন্ত্রাসীরা প্রতিবেশী অসহায় খালেক মন্ডলকে সরকারী বন্দোবস্তকৃত জমি ছেড়ে দিতে প্রতিনিয়ত ভয়-ভীতি ও হুমকি প্রদর্শনসহ নানাভাবে উচ্ছেদের পাঁয়তারা করছে। এতে ভূক্তভোগী পরিবার চরম নিরাপত্তাহীনতার মধ্যে রয়েছে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ ক্যাটাগরিতে আরো সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশকঃ
খান মোহাম্মদ জহুরুল হক

সম্পাদকীয় কার্যালয়ঃ
রাজবাড়ী প্রেসক্লাব ভবন (নীচ তলা),
কক্ষ নং-৩, রাজবাড়ী-৭৭০০।

Contact us: editor@dailyrajbarikantha.com

প্রকাশনাঃ
সম্পাদক কর্তৃক বি এস প্রিন্টিং প্রেস, ৫২/২ টয়নবী সার্কুলার রোড, ঢাকা-১২০৩ থেকে মুদ্রিত এবং দক্ষিণ ভবাণীপুর, রাজবাড়ী থেকে প্রকাশিত।

মোবাইল- ০১৭১১১৫৪৩৯৬,
বার্তা বিভাগ- ০১৭৫২০৪০৭২০,
বিজ্ঞাপন বিভাগ- ০১৯৭১১৫৪৩৯৬

error: Sorry buddy! You can\'t copy our content :) Content is protected !!