বালিয়াকান্দিতে শ্রদ্ধা ও ভালোবাসায় বাংলার বাণীর সম্পাদক ফকির আবদুর রাজ্জাককে সমাহিত

189

সোহেল রানা ঃ প্রবীন রাজনীতিবিদ, সাংবাদিক, কলামিষ্ট ও দৈনিক বাংলার বাণী পত্রিকার সম্পাদক বীরমুক্তিযোদ্ধা ফকির আবদুর রাজ্জাক (৭৫) আর নেই। ( ইন্না লিল্লাহী ওয়া ইন্না ইলাহী রাজেউন)। রবিবার রাত সাড়ে ৭টার রাজবাড়ীর বালিয়াকান্দি উপজেলার নবাবপুর ইউনিয়নের দক্ষিনবাড়ী গ্রামের বাড়ীতে ইন্তেকাল করেন।
তিনি দীর্ঘদিন দুরারোগ্য ব্যাধিতে আক্রান্ত হয়ে নিজবাড়ীতেই চিকিৎসাধীন ছিলেন। মৃত্যুকালে স্ত্রী, ২ ছেলে, ১ মেয়েসহ অসংখ্যগুনগ্রাহী আত্বীয় স্বজন রেখে গেছেন।
জানাগেছে, বীরমুক্তিযোদ্ধা ফকির আবদুর রাজ্জাক দেশের বিশিষ্ট প্রবীন সাংবাদিক, কলামিষ্ট, ১৯৭২ সালের ২১ ফেব্রুয়ারী দৈনিক বাংলার বাণী প্রকাশের প্রথমদিন থেকেই তার সাংবাদিকতার জীবন শুরু। সহকারী সম্পাদক হিসেবে পত্রিকাটিতে যোগ দেওয়ার পর তিনি সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করেন। ২০০১ সালের ১৪ এপ্রিল বন্ধ হওয়া পর্যন্ত এ পত্রিকাতেই ছিলেন তিনি। পরে দৈনিক সংবাদে রাজনীতির পথে প্রান্তে কলামসহ বিভিন্ন পত্রিকায় ফ্রিল্যান্স কলামিষ্ট হিসেবে পরিচিত। রাজনীতিতে তিনি ৪০ বছর যাবৎ সক্রিয় ভাবে আওয়ামীলীগের সাথে জড়িত ছিলেন। মুক্তিযুদ্ধে তিনি গেরিলা প্রশিক্ষক ছিলেন। শেখ ফজলুল হক মনির সাথে তার ছিল গভীর রাজনৈতিক সম্পর্ক। সম্প্রতি সময়ে রাজনীতিতে সক্রিয় না থাকলেও তার দেশত্ব বোধ ও বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা প্রতিষ্ঠায় তার লেখনীর মাধ্যমে জনগণকে অনুপ্রানিত করেন। তার লেখার মধ্যে রাজনীতি, মুক্তিযুদ্ধ, দেশ ও দলের গুরুত্বপুর্ন বিষয় ফুটে উঠেছে। আলোর পথের দিশারী যারা তাদের স্মরণেও তিনি বই লিখেছেন। ফকির আবদুর রাজ্জাক ১৯৪৬ সালে রাজবাড়ী জেলার বালিয়াকান্দি উপজেলার নবাবপুর ইউনিয়নের দক্ষিণবাড়ী গ্রামে জন্মগ্রহন করেন। তিনি বিএ অনার্স ও এমএ পাশ করেন ৬৮ ও ৬৯ সালে। তার স্ত্রী সাবেক সচিব রেজিনা আক্তার খানম, ২ ছেলের মধ্যে একজন চিকিৎসক অন্যজন ইঞ্জিনিয়ার ও এক মেয়ে রয়েছেন।

ফকির আবদুর রাজ্জাক ঢাকাস্থ বালিয়াকান্দি উপজেলা সমিতির প্রতিষ্ঠাতাদের মধ্যে অন্যতম। তিনি বঙ্গবন্ধুর নবীন সহযোদ্ধা ছিলেন। রাজশাহী জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি, বাংলাদেশ যুবলীগের প্রতিষ্ঠাতা সাধারন সম্পাদকসহ জাতীয় পর্যায়ের আওয়ামীলীগের একজন নেতা ছিলেন। তিনি জীবনদশায় নিজের জন্য কিছু না করলেও রাজনীতিতে নিবেদিত প্রাণ ছিলেন।
সোমবার সকাল ১০টায় নিজবাড়ীতে রাষ্ট্রীয় মর্যাদা শেষে পারিবারিক কবরস্থানে মায়ের পাশে সমাহিত করা হয়। এরআগে উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে উপজেলা নির্বাহী অফিসার একেএম হেদায়েতুল ইসলাম, বালিয়াকান্দি থানার অফিসার ইনচার্জ তারিকুজ্জামান, উপজেলা ও জেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদ তার মরদেহে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন। এসময় রাজবাড়ী সরকারী কলেজের অধ্যক্ষ (অবঃ) ফকির আব্দুর রশিদ, জেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি ফকরুজ্জামান মুকুট, জেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি ও জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ফকীর আব্দুর জব্বার, রাজবাড়ী জেলা সাবেক মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার আবুল হোসেন, ঢাকাস্থ বালিয়াকান্দি উপজেলা সমিতির সভাপতি ডিএন চ্যাটার্জী, বালিয়াকান্দি উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি আব্দুল হান্নান মোল্যা, উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মোঃ আবুল কালাম আজাদ, নবাবপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মোঃ আবুল হোসেন আলী, বালিয়াকান্দি উপজেলা সাবেক মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার আব্দুল মতিন ফেরদৌসসহ এলাকার মুক্তিযোদ্ধা, রাজনৈতিক নেতা, জনপ্রতিনিধি, সাংবাদিকসহ বিভিন্ন শ্রেণী-পেশার মানুষ উপস্থিত ছিলেন। মুক্তিযোদ্ধা, সাংবাদিক, কলামিষ্ট ও রাজনীতিবিদ ফকির আবদুর রাজ্জাক এর ছেলে ডা. জয় স্মৃতিচারণ করে করেন।

Advertisement

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here