পাট্টা ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাংবাদিক সম্মেলনে অভিযোগ ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সম্পাদক জনাব আলীর বিতর্কিত কর্মকান্ড নিয়ে সমালোচনার ঝড়!

325

মাসুদ রেজা শিশির ঃ রাজবাড়ীর পাংশা উপজেলার পাট্টা ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের আয়োজনে সাম্প্রতিক সময়ে পাট্টা ইউনিয়নে ঘটে যাওয়া বিভিন্ন বিষয় তুলে ধরে ও অপ্রচারের বিরুদ্ধে বুধবার বিকালে পাট্টা জোনা বাজারে সাংবাদিক সম্মেলন করেছেন ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ।
এ সাংবাদিক সম্মেলনে ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সকল পর্যায়ের নেতারা বক্তব্য কালে ইউনিয়ন আওয়ামলীগের সাধারণ সম্পাদক মোঃ জনাব আলীর বিরুদ্ধে তার নানা বির্তকিত কর্মকান্ডের জন্য ক্ষোভ প্রকাশ ও সাংগঠনিক ব্যবস্থার দাবী জানান।
পাট্টা ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি ও ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আব্দুর রব মুনা বিশ^াসের সভাপতিত্বে ও ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক মোঃ ইউনুস আলী বিশ^াসের সঞ্চালনায় সাংবাদিক সম্মেলনে বক্তব্য রাখেন, ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের প্রচার সম্পাদক মোঃ রবিউল ইসলাম, বন ও পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক সাজেদুর রহমান মুকুল, আওয়ামীলীগ নেতা মোঃ আব্দুস সালাম, ইউপি সদস্য লুৎফর রহমান, ৭নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের সভাপতি আবু তারেক মোল্লা, ১ নং ওয়ার্ডের সাধারণ সম্পাদক বাবন উদ্দিন, ৫নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক ইসহাক আলী, ২ নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের সভাপতি আব্দুর রাজ্জাক বিশ^াস, ৮ নং ওয়ার্ডের সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ আলী জিন্নাহ, ৪ নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক সাচ্চু বিশ^াস, জিয়াউর রহমান মিলন প্রমুখ।
এ সময় সকল বক্তাই একই সুরে বলেন, বর্তমান ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি ও চেয়ারম্যান মোঃ আব্দুর রব মুনা বিশ^াসের জনপ্রিয়তায় ঈশ^ানিত হয়ে ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক মোঃ জনাব আলী বিভিন্ন ভাবে ষড়যন্ত্র করে চলছে, মিথ্যা তথ্য দিয়ে নানা অপ্রচার চালাচ্ছে।
তারা বলেন, জনাব আলী একজন চিহ্নত থানার দালাল এলাকায় কিছু হলেই থানা পুলিশের সাথে আতাত করে নিরিহ মানুষদের হয়রানী করে অর্থ আদায় করাই তার প্রধান পেশা।
সাংবাদিক সম্মেলনে ২ নং ওয়ার্ডের সভাপতি আব্দুর রাজ্জাক বিশ^াস বলেন, জনাব আলী আমার এলাকার বিএনপির লোকজনদের সাথে নিয়ে আমাদের মামলা দিয়ে হয়রানী করে চলছে দির্ঘদিন ধরে, আমি আমাদের রাজনৈতি অভিভাবক বীর মুক্তিযোদ্ধা মোঃ জিল্লুল হাকিম এমপিকে বিষয়টি গুরুত্বের সাথে দেখার অনুরোধ করছি, সেই সাথে প্রশাসনকে অনুরোধ করে বলি আপনারা সঠিক ভাবে তদন্ত করে ব্যবস্থা গ্রহণ করুন।
ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের প্রচার সম্পাদক মোঃ রবিউল ইসলাম বলেন, এই জনাব মন্ডলের জন্য আমি আমার ছেলে অসুস্থ অবস্থায় তাকে চিকিৎসা করাতে পারিনি আমার মাত্র ৭ মাসের শিশু সন্তান চিকিৎসার অভাবে মারা গিয়েছে, জনাব মন্ডল প্রশাসনকে মিথ্যা তথ্য দিয়ে আমাকে বাড়ী ছাড়া করেছিল, আমার বিরুদ্ধে ৬টি মিথ্যা মামলা দিয়ে হয়রানী করে চলছে এই ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক জনাব আলী।
তিনি আরো বলেন, আমি প্রশাসনকে অনুরোধ করে বলি জনাবের কথায় আপনারা আমাদের হয়রানী না করে সঠিক তদন্ত করে ব্যবস্থা নিন,আমি অপরাধ করলে সাজা আমার হবেই।
সভাপতির বক্তব্যে ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি ও ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আব্দুর রব মুনা বিশ^াস বলেন, দলের সাধারণ সম্পাদক একজন চিহ্নিত থানার দালাল, তিনি এলাকায় কোন ঘটনা ঘটলেই পুলিশের সাথে যোগাযোগ করে সাধারণ মানুষের হয়রানী করে টাকা কামাই করাই তার কাজ, জনাব আলীর সকল ভাই বিএনপির রাজনিতির সাথে জড়িত, তার সাথে কোন দলীয় লোকজন নেই, কোন কর্মসূচীতে তাকে পাওয়া যায়না, বিভিন্ন সময় নানা ভাবে অপ্রচারে লিপ্ত এই জনাব আলী। ইউপি চেয়ারম্যানসহ সকল বক্তাগন ফেসবুকসহ বিভিন্ন মিডিয়ায় বিভ্রান্তি মূলক তথ্য দিয়ে ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি ও ইউপি চেয়ারম্যানকে নিয়ে মিথ্যা বানোয়াট তথ্য প্রচার করা থেকে বিরত থেকে সঠিক তথ্য প্রচারের আহবান জানান। এ সময় ইউনিয়নের প্রতিটি ওয়ার্ডের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকসহ দলের বিভিন্ন পর্যায়ের ৫ শতাধীক নেতা কর্মীগন উপস্থিত ছিলেন এই সাংবাদিক সম্মেলনে।
ইউনিয়ন আওয়ামলীগের সাধারণ সম্পাদক মোঃ জনাব আলী এ প্রসঙ্গে বলেন, আমার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রমুলক অভিযোগ করেছে। এ সব অভিযোগের ভিত্তি নেই।

Advertisement

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here