কালুখালীতে লাল তীর পেয়াজের বাম্পার ফলন

182

আবু সাঈদ, কালুখালী প্রতিনিধি ঃ রাজবাড়ী কালুখালী উপজেলায় পেয়াজ চাষের জন্য খ্যাতি রয়েছে। জেলার মধ্যে এই উপজেলায় পেয়াজ চাষের জন্য মাটি ও আবহাওয়ার উপযোগি হওয়ায় প্রচুর পরিমান পেয়াজ চাষ হয় এই উপজেলায় । বিশেষ করে উপজেলার মৃগী ,সাওরাইল বোয়ালিয়া ,মাজবাড়ীর ইউনিয়নে পেয়াজ উৎপাদন বেশী হয়েথাকে ।
পেয়াজ চাষীরা বেশী ফলন পাবার জন্য খুজছে নতুন নতুন উদ্ভাবন। তাহের পুরী,কিং,এরপর বাজারে আসছে ,লালতীর হাইব্রিড পেয়াজ বীজ ।
গতকাল মৃগী ইউনিয়নের মৃগীবাড়ী গ্রামের পিয়াজ মাঠে লালতীর হাইব্রিড চাষী ,হাবু বিশ্বাস,জাকির মন্ডল ,লুৎফর বিশ্বাস জানান আমরা এবছর রেজাউল করিম আবুর দোকান থেকে লালতীর হাইব্রিড বীজ সংগ্রহকরি । অন্য পেয়াজের পাশে চাষকরে দ্বীগুন ফলন পেয়েছি ,প্রতি শতাংশে ১৪০/১৬০কেজী পেয়াজ ফলন পেয়েছি । এই পেয়াজের ওজন ও স্থায়িত্ব বেশী । এসময় রিজিওনাল ম্যানেজার হারুন-আর- রশিদ, পেয়াজের বীজ বিক্রেতা রেজাউল করিম আবু ,মার্কেটিং অফিসার হুমায়ুন কবীর প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন ।
উপজেলা নির্বাহী অফিসার ভারপ্রাপ্ত শেখ নুরুল আলম জানান এই উপজেলায় পেয়াজ এর উৎপাদন ভালো হয়েথাকে এবছরও ভালো ফলন হয়েছে । কালো বাজারী ও মজুদদার দের অসৎ উদ্দেশ্য না থাকলে কৃষক লাভবান হবে।
উপজেলা কৃষি অফিসার মাছিদুর রহমান জানান পেয়াজ উৎপাদনের উপযোগী আবহাওয়া হওয়ায় এ বছর কালুখালী উপজেলার পেয়াজের ভালো ফলন হয়েছে পেয়াজ উৎপাদনের পূর্ণ মৌসুম চলছে । আবহাওয়া ভালো থাকলে কৃষক লাভবান হবে।
লাল তীর সীড এর রিজিওনাল ম্যানেজার হারুন-আর-রশিদ জানান আমার দায়িতে তিনটি জেলার মধ্যে রাজবাড়ী জেলার কালুখালী উপজেলায় বেশী লাল তীর হাইব্রীড পেয়াজের বীজ বেশী চাষ হয়েছে।হাইব্রীড পেয়াজ চাষে আমরা পেয়াজে স্বয়ং সম্পূর্ণ হতে পারি।

Advertisement

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here