বালিয়াকান্দি উপজেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তার বিরুদ্ধে অফিস ফাঁকির অভিযোগ

119

স্টাফ রিপোর্টার ঃ রাজবাড়ীর বালিয়াকান্দি উপজেলা প্রাণিসম্পদ কার্যালয়। এ দপ্তরটি গুরুত্বপুর্ণ হলেও দীর্ঘদিন ধরে নেই প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা। কিছুদিন জেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা দায়িত্ব পালন করলেও বর্তমানে উপজেলা ভেটেরিনারী সার্জন ডা. মোঃ শাহিনুর রহমান ভারপ্রাপÍ প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন। দায়িত্ব নিয়েই নিজের ইচ্ছা মতো অফিস পরিচালনা করছেন। তিনি সপ্তাহে ৩ দিন অফিস করেন বলে জনশ্রুতি রয়েছে। তার বিরুদ্ধে বিভিন্ন অনিয়ম ও দুর্ণীতির অভিযোগ উঠেছে।
সোমবার সকাল ১১টা। উপজেলা প্রাণিসম্পদ অফিসে ঢুকতেই দেখাযায় বিভিন্ন এলাকা থেকে গরু-ছাগল নিয়ে অন্তত ১৭-১৮জন ভীড় করছেন। তাদের কাছে জিজ্ঞাসা করলে বলেন, প্রায় ঘন্টা খানিক বসে আছি কেউ নেই। অফিসে ঢুকতেই কম্পাউন্ডার আবু হেনা আসলেন, এসেই দ্রুত চিকিৎসা শুরু করলেন। ভেটেরিনারী সার্জনের রুম খোলা থাকলেও অফিসে কেউ নেই। অফিসের অন্যান্য রুমে তালা ঝুৃলছে।
নাম না প্রকাশের শর্তে অফিসের একজন স্টাফ বলেন, স্যার বৃহস্পতিবার সকালে চলে গেছেন, রবিবার ১টার মধ্যে চলে আসবেন। তিনি প্রতি সপ্তাহেই দু,একদিন বিনা ছুৃটিতে থাকেন। আর লকডাউন তো, এটা বিষয় নয়।
চিকিৎসায় ব্যস্ত আবু হেনা জানালেন, স্যার বাড়ী এখনও আসেননি, তবে পথে আছেন।
প্রাণি চিকিৎসা নিতে আসা কয়েকজন বলেন, আবু হেনা ছাড়া কাউকে প্রাণিসম্পদ অফিসে পাওয়া যায় না। এ কার্যালয়ে কোন কর্মকর্তা আছে নাকি, আমরা তাকে চিনি না। আর যারা আছে তারা মোটর সাইকেল নিয়ে গ্রামে গ্রামে প্রাইভেট প্যাকটিস নিয়ে ব্যস্ত থাকেন।
এদিকে মানুষের পুষ্টির চাহিদা পুরণে ডিম,দুধ, মাংস বিক্রির কার্যক্রম থমকে গেছে। শুধু মাত্র কয়েকদিন ধরে ডিম বিক্রি কার্যক্রম চলছে। রবিবার বালিয়াকান্দি সাপ্তাহিক হাটে শুধু মাত্র ডিম ২টি অটোবাইক যোগে ডিম বিক্রি করতে দেখা যায়। তবে কোন মাংস বিক্রি করা হয়নি।
ক্রেতাদের অভিযোগ তদারকির অভাবে সরকারের সুন্দর উদ্যোগ ভেস্তে যেতে বসেছে। বিষয়টি তদন্ত পুর্বক এ কর্মকর্তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার দাবী জানান।
এ বিষয়ে জানতে উপজেলা প্রাণি সম্পদ কর্মকর্তা (ভারপ্রাপ্ত) ডা. মোঃ শাহিনুর রহমানের সাথে যোগাযোগের চেষ্টা করেও তার সাথে কথা বলা সম্ভব হয়নি।
রাজবাড়ী জেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা ডা. ফজলুল হক সরদার বলেন, আমি বালিয়াকান্দি যাচ্ছি, গিয়ে দেখবো।

Advertisement

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here