• শনিবার, ০৪ ডিসেম্বর ২০২১, ১০:৩০ পূর্বাহ্ন

বালিয়াকান্দিতে জমি নিয়ে আদালতে মামলা ॥ মন্দির ভাঙচুরে অভিযোগ

প্রতিবেদকঃ / ১৯৬ পোস্ট সময়
সর্বশেষ আপডেট শনিবার, ২৭ জুন, ২০২০

স্টাফ রিপোর্টার ঃ রাজবাড়ীর বালিয়াকান্দি উপজেলার বহরপুর ইউনিয়নের ইলিশকোল গ্রামে বিরোধপুর্ণ জমিতে মন্দির উত্তোলনকে কেন্দ্র করে আদালতে মামলা দায়ের হয়েছে। এ বিরোধে শুক্রবার বিকেলে মন্দির ভাংচুরের পাল্টাপাল্টি অভিযোগ উঠেছে। সন্ধ্যায় থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) একেএম আজমল হুদা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। শনিবার থানায় বসে মিমাংসা হয়েছে।
স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, প্রায় পাঁচ মাস আগে স্থানীয় বাসিন্দা অমর দাস ইলিশকোল সার্বজনীন রাধাগোবিন্দ মন্দিরের নামে ছয় শতাংশ জমি দেন। এরপর ওই জমির ওপর থাকা কলাগাছের বাগান পরিস্কার করার উদ্যোগ নেওয়া হয়। কলাগাছের বাগান পরিস্কার করা হলে বিনয় দাস মন্দিরের জমিতে তাঁর দুই শতাংশ জমি আছে বলে দাবি করে কাজে বাধা দেন। তাকে দুইমাসের মধ্যে জমির প্রয়োজনীয় কাগজপত্র দেখাতে বলা হয়। এরপর সেখানে চার শতাংশ জমির ওপর মন্দির স্থাপন করা হয়। জমির কাগজ জটিলতার কারণে বিনয় দাস রাজবাড়ী আদালতে অমর দাস ও তাঁর পরিবারের সদস্যদের বিরুদ্ধে আদালতে (১০৭, ১১৪ ও ১১৭ ধারায়) মামলা দায়ের করেন। কয়েকদিন আগে অবশিষ্ট দুই শতাংশ জমিতেও টিনের প্রাচীর দেওয়া হয়। শুক্রবার বিকেলে বিনয় দাসের দাবীকৃত ২শতাংশ জমিতে থাকা বেড়া অপসারণ করে মন্দিরের ঘর উত্তোলন করতে যায়। বিনয় দাস মন্দিরের প্রাচীরের টিন সরিয়ে ফেলে।
অমর দাসের ছেলে অরূপ দাস ও প্রতিবেশী বাবু কুমার দেবনাথ বলেন, মন্দির নিয়ে প্রথম বৈঠকে তারা কোনো অভিযোগ করে নাই। তাদের কোনো কাগজপত্রও নেই। ইগো প্রবলেমের কারনে তাঁরা মন্দির তৈরিতে বিরোধীতা করছে। তারা মন্দির ভাংচুর করে। ওসি স্যার শনিবার এবিষয়ে থানায় বসে মিমাংসা করে দিয়েছেন।
বিনয় দাসের ছেলে বিজয় দাস বলেন, যে জমিটি মন্দিরের নামে রেজিষ্ট্রি করে দিয়েছে অমর দাস ওই জমিতে পারিবারিক সম্পত্তি হিসেবে ২শতাংশের মালিক আমার পিতা। জমিটি মন্দিরে লাগবে বলেও কেউ আমাদের কে অবগত করেনি। জোড়পুর্বক জমিটি দখলে নেওয়ার চেষ্টা করছিল। শুক্রবার বিকাল ৫টার দিকে অরুপ, অমর, বাবু কুমার মিলে আমার ২শতাংশ জমি পেচিয়ে মন্দিরের ঘর ও বেড়া নির্মাণের চেষ্টা করে। এতে আমার পিতা বিনয় দাস বাধা দিলে তাকে মারধোর করে। আমরা জমির সীমানায় থাকা বেড়াটি অপসারণ করি। কিন্তু মন্দিরের মুর্তি ভাংচুর করিনি। তারা নিজেরাই ভাংচুর করে আমাদেরকে ফাঁসানোর জন্য ভাংচুরের মিথ্যা অভিযোগ করছে। বিষয়টি নিয়ে আদালতে মামলা চলমান রয়েছে।
বালিয়াকান্দি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এ কে এম আজমল হুদা বলেন, দুই ভাইয়ের মধ্যে দুই শতাংশ জমি নিয়ে বিরোধের সূত্র ধরে হামলার ঘটনা ঘটেছে। এটি কোনো সাম্প্রদায়িক সহিংসতা নয়। শনিবার উভয়পক্ষকে থানায় বসে মিমাংসা করে দেওয়া হয়েছে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ ক্যাটাগরিতে আরো সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশকঃ
খান মোহাম্মদ জহুরুল হক

সম্পাদকীয় কার্যালয়ঃ
রাজবাড়ী প্রেসক্লাব ভবন (নীচ তলা),
কক্ষ নং-৩, রাজবাড়ী-৭৭০০।

Contact us: editor@dailyrajbarikantha.com

প্রকাশনাঃ
সম্পাদক কর্তৃক বি এস প্রিন্টিং প্রেস, ৫২/২ টয়নবী সার্কুলার রোড, ঢাকা-১২০৩ থেকে মুদ্রিত এবং দক্ষিণ ভবাণীপুর, রাজবাড়ী থেকে প্রকাশিত।

মোবাইল- ০১৭১১১৫৪৩৯৬,
বার্তা বিভাগ- ০১৭৫২০৪০৭২০,
বিজ্ঞাপন বিভাগ- ০১৯৭১১৫৪৩৯৬

error: Sorry buddy! You can\'t copy our content :) Content is protected !!