• বুধবার, ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০১:১১ পূর্বাহ্ন
শিরোনামঃ
রাজবাড়ীতে আদালতের নির্দেশে জমির দখল বুঝে পেলেন নাসির উদ্দিন কৃষক পরিবারের সন্তানদের অংশগ্রহণে দৌলতদিয়ায় নাইট সর্টপিস ক্রিকেট টুর্নামেন্ট উদ্বোধন বালিয়াকান্দি বেসরকারি ক্লিনিক হাসপাতাল ল্যাব ও ডায়াগনস্টিক সেন্টারে অভিযান পাংশায় বেসরকারি ক্লিনিক হাসপাতাল ল্যাবও ডায়াগনস্টিক সেন্টারে অভিযান গোয়ালন্দ উপজেলা চেয়ারম্যান কাপ ক্রিকেটের ফাইনালে দূরন্ত ক্রিকেট একাদশ চ্যাম্পিয়ন কালুখালীতে জাতীয় স্থানীয় সরকার দিবস পালিত পাংশায় জাতীয় পরিসংখ্যান দিবস পালিত বালিয়াকান্দিতে জাতীয় পরিসংখ্যান দিবসে র‌্যালী ও আলোচনা সভা পাংশায় জাতীয় স্থানীয় সরকার দিবস পালিত গোয়ালন্দে জাতীয় স্থানীয় সরকার দিবসে র‌্যালী ও আলোচনা সভা

বসন্ত ও ভালবাসা দিবসের আগেই রাজবাড়ীতে দাম বেড়েছে গোলাপ ফুলের

প্রতিবেদকঃ / ৭৭ পোস্ট সময়
সর্বশেষ আপডেট সোমবার, ১২ ফেব্রুয়ারী, ২০২৪


রুবেলুর রহমান : পহেলা ফাল্গুনে বসন্তবরণ উৎসব ও ১৪ই ফেব্রুয়ারী বিশ্ব ভালবাসা দিবসকে কেন্দ্র করে বিপুল সংখ্যক ফুল মজুদ করেছে রাজবাড়ীর ফুল ব্যবসায়ী। এরমধ্যে সববেয়ে বেশি মজুদ করা হয়েছে গোলাপ ফুল।
স্থানীয়ভাবে রাজবাড়ী জেলায় কোন ফুল চাষ না হওয়ায় যশোর, কালিগঞ্জ সহ কয়েকটি স্থান থেকে ফুল আমদানি করেছেন ব্যবসায়ীরা। ফুলের দাম ও পরিবহন খরচ বেড়ে যাওয়ায় এবার খুচরা পর্যায়ে ফুলের দামও বেড়েছে বলে দাবী ব্যবসায়ীদের। তবে বিশেষ এই দিনে দাম নিয়ে তেমন সমস্যাও হয় না। তাছাড়া বছরের এই দিনটির আশায় থাকেন ব্যবসায়ীরা। প্রতিপিস গোলাপ প্রকারভেদে রাজবাড়ীতে বিক্রি হচ্ছে ৫০ থেকে ১শ টাকায়। তবে আজ দাম আরও বাড়বে বলে জানিয়েছেন ব্যবসায়ীরা
সোমবার দুপুরে রাজবাড়ী জেলা শহরের বড়পুল ও পান্না চত্ত্বর এলাকার ফুলের বেশ কয়েকটি দোকান ঘুরে এমন চিত্র দেখা যায়।
রাজবাড়ী জেলা শহরে রাজবাড়ী ফুল সেন্টার, নুপুর ফুল সেন্টার, রাজবাড়ী ফুল ঘর, বিধি ফুল ঘরসহ বেশ কয়েকটি ফুলের দোকান রয়েছে। এরমধ্যে প্রতিটি ব্যবসায়ী বসন্ত উৎসব ও ভালবাসা দিবসকে কেন্দ্র করে ৫০ হাজার থেকে প্রায় ২ লক্ষাধিক টাকার ফুল আমদানি করেছেন। প্রতিটি ব্যবসায়ী দেশি বিদেশী প্রায় ৫ রকমের গোলাপের পাশাপাশি জারবারা, রজনিগন্ধা, অর্কিটসহ বিভিন্ন ধরনের ফুল আমদানি করেছে।
ক্রেতা উৎপল রায়, তাহমিনা সহ কয়েকজন বলেন, সখ করে গোলাপ ফুল কিনতে এসে হতাশ হয়ে পড়েছেন। ১২ ফেব্রুয়ারী প্রতি পিসের দাম নিচ্ছে সর্বনিম্ন ৫০ টাকা। আগামীকাল ও পড়শু দাম আরও বাড়বে। তারপরও প্রিয়জনকে খুশি করতে ও নিজের ভাল লাগায় ফুলরকিনছেন। তবে দাম সহনিয় পর্যায় থাকলে সবার জন্যই ভাল হতো।
নুপুর ফুল সেন্টারের মালিক হাবিবুর রহমান হাবিব বলেন, সারাবছর ফুল বেচা বিক্রি হলেও এই দিনটিকে কেন্দ্র করে তিনি প্রায় দুই লক্ষ ফুল আমদানি করেছেন। এরমধ্যে বেশি আমদানি করেছেন গোলাপ ফুল। দেশীয় গোলাপের পাশাপাশি ইন্ডিয়ান ও থাই গোলাপ এনেছেন। আজ প্রতিপিস গোলাপ ৫০ থেকে ১শ টাকায় বিক্রি করলেও আগামীকাল থেকে দাম আরও বাড়বে। বিশেষ এই দিনে তিনি একটি গোলাপ ৫০ থেকে ৫০০ টাকা পর্যন্ত বিক্রি করে থাকেন। আশা করছেন তার সব ফুল বিক্রি হয়ে যাবে।
রাজবাড়ী ফুল সেন্টারের মালিক কালাম মন্ডল বলেন, বসন্ত উৎসব ও ভালবাসা দিবস উপলক্ষে তিনি এক লক্ষ টাকার বেশি ফুল এনেছেন। তার কাছে লাল, হলুদ, সাদাসহ ৫ ধরনের গোলাপ আছে। ভালবাসা দিবস উপলক্ষে ৪ হাজার গোলাপ রেখেছেন। আশা করছেন ৫০ থেকে দেড়শ টাকা পর্যন্ত একেএকটি গোলাপ বিক্রি হবে। অন্য বছরের তুলনায় এবছর বাজার দর বেশি, যার কারণে তারাও একটু বেশি দামে বিক্রি করছেন।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ ক্যাটাগরিতে আরো সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ